টাকার লোভে পাশে ঘুমানো কর্মচারীকে গলা কে’টে হ’ত্যা

কক্সবাজারের উখিয়ায় এক রোহিঙ্গার হাতে স্থানীয় এক দোকান কর্মচারী খুন হয়েছে। ফোরকান আহমদ ওরফে কালু নামে ওই দোকান কর্মচারীকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। এই সময় ৪৫ হাজার টাকা লুট করা হয়।

রোববার ভোরে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কোটবাজার দক্ষিণ স্টেশনে এইহত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত দোকান কর্মচারী উখিয়া উপজেলার রত্নাপালং ইউনিয়নের তেলিপাড়া এলাকার বশির আহমদের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, উখিয়ার কোটবাজার দক্ষিণ স্টেশনের স্থানীয় ব্যবসায়ী শাহ আলমের মালিকানাধীন একটি ডেকোরেটর দোকানে স্থানীয় ও রোহিঙ্গা কর্মচারীরা কাজ করতো।

এই কারণে রাতে একসঙ্গে ওই দোকানে ঘুমাতো তারা। সর্বশেষ রোববার রাতের যেকোনো সময়ে স্থানীয় কর্মচারী কালুকে ঘুমন্ত অবস্থায় গলা কেটে হত্যা করে ওই রোহিঙ্গা কর্মচারী। এই সময় দোকানে থাকা ৪৫ হাজার টাকা নিয়ে পালিয় যায় সে। পালিয়ে যাওয়া রোহিঙ্গা কর্মচারীর পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি।

উখিয়া থানার ওসি আহাম্মদ মনজুর মোরশেদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ রোববার বেলা ১১টার দিতে মরদেহটি উদ্ধার করেছে। ধারণা করা হচ্ছে টাকার লোভে তাকে হত্যা করা হয়েছে। আসামিদের ধরার চেষ্টা চলছে। দোকান মালিক শাহ আলমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি কক্সবাজার জেলা হাসপাতালে পাঠানো হবে। এই ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*